ভাল্লাগসেভাল্লাগসে মাইরালামাইরালা কস্কি মমিনকস্কি মমিন

সমুদ্রে ঘুরতে যাওয়ার প্ল্যান করছেন? তাহলে এই ৭টি টিপস আপনার জন্য

সমুদ্র তীরের অপার সৌন্দর্যের লীলাভূমি কক্সবাজার। তার একটু দূরেই আছে সাগর কন্যা সেন্ট মার্টিন দ্বীপ। বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় পর্যটন কেন্দ্র হওয়া সত্ত্বেও অব্যবস্থাপনা ও পর্যাপ্ত সুযোগ সুবিধার অভাবে পর্যটকদের এই সকল জায়গায় প্রায়ই বিড়ম্বনার শিকার হতে হয়। কিন্তু কিছু ব্যাপারে আগে থেকেই প্রস্তুতি নিয়ে রাখলে আপনি সেখান থেকে অসাধারণ সময় কাটিয়ে আসতে পারবেন। তাহলে চলুন, জেনে নেয়া যাক এখানে যাওয়ার আগে কি ধরণের প্রস্তুতিগুলো নিয়ে রাখা উচিত।

 

#১

কক্সবাজার বা সেন্ট মার্টিনসের যেকোনো একটি জায়গার জন্য যাওয়া আসা ছাড়া কমপক্ষে ৩ দিন সময় রাখুন। আর প্ল্যানে দুইটাই অন্তর্ভুক্ত থাকলে ৫ দিন হাতে রাখুন। সময় কম থাকলে শরীরের উপর দিয়েও ধকল যাবে, ট্যুর থেকে এসে আপনার মন ও ভরবে না। তাই সময় কম থাকলে যেকোনো একটি জায়গায় যাওয়া উত্তম।

 

#২

সমুদ্রের উপকূলীয় অঞ্চলে প্রায়ই হঠাৎ করে নিম্নচাপের সৃষ্টি হয়। এই সময় সকল নৌ চলাচল বন্ধ থাকে এবং দুর্যোগপ্রবণ আবহাওয়ার কারণে সৈকত ও বন্ধ করে দেওয়া হয়(সেন্ট মার্টিনের জাহাজ মাঝপথ থেকে ফেরত আসার কাহিনী ও আছে)। তাই ট্যুরের প্ল্যান করার সময় অবশ্যই পরবর্তী কয়েক দিনের আবহাওয়া পূর্বাভাসের দিকে খেয়াল রাখতে হবে। ট্যুরে যাওয়ার পর এরকম অবস্থার মুখোমুখি হলে অবশ্যই সাবধানতার সাথে চলাফেরা করতে হবে। কোনোভাবেই ঝুঁকি নিয়ে কিছু করতে যাবেন না।

 

#৩

অনেকেই মনে করেন কক্সবাজারে পৌঁছে সবকিছু ঠিক করবেন। এটা সবচেয়ে বড় ভুল। সারা বছরই এখানে ভীড় লেগে থাকে এবং আগে বুকিং না করলে পছন্দমত হোটেলে জায়গা পাওয়া বেশ দুস্কর। বিভিন্ন ট্রাভেল এজেন্সির মাধ্যমে যাওয়ার আগেই বুকিং করে রাখতে পারবেন।

 

#৪

সেন্ট মার্টিনসের জাহাজের টিকেট কেনার সময় অবশ্যই সাবধানতা অবলম্বন করবেন। টিকেটে সিট নম্বরটা স্পষ্টভাবে প্রিন্ট করা কিনা তা যাচাই করে নিন। আসা-যাওয়ার টিকেট অবশ্যই একসাথে কিনে নিবেন এবং পরিচিত কোনো এজেন্সি থেকেই টিকেট সংগ্রহ করা উত্তম।

 

#৫

কক্সবাজার ও সেন্ট মার্টিনসে, উভয় জায়গায় সমুদ্রে গোসল করার জন্য সৈকতের কিছু বিশেষ জায়গা চিহ্নিত করা আছে। এই চিহ্নিত পয়েন্ট ছাড়া অন্য জায়গাগুলোতে কোনোভাবেই প্রবেশ করা যাবে না। কারণ সাধারণত ঐসকল জায়গাতেই চোরাবালি থাকার এবং অন্যান্য দূর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা প্রবল থাকে। সমুদ্র নামার আগেভাগেই জোয়ারভাটার সময়ের দিকে খেয়াল রাখতে হবে। সমুদ্রে নামার পর কখনোই সেফটি লাইন অতিক্রম করা যাবে না।

 

#৬

সমুদ্রের অন্যতম আকর্ষণ টাটকা সামুদ্রিক খাবার। তাই অবশ্যই সময় করে স্কুইড, অক্টোপাস, কাকড়া বা চিংড়ি চেখে নিতে পারেন। লোকাল রেস্টুরেন্টে খেতে গেলে অবশ্য গাউসিয়া/নিউ মার্কেটের মত দামাদামি করতে হতে পারে। তবে শরীর সুস্থ রাখার জন্য অবশ্যই প্রচুর পরিমাণে পানি ও তরল পানীয় পান করুন।

 

#৭

সেন্ট মার্টিনে সকল জিনিসপত্রের দাম কক্সবাজারের চেয়ে একটু বেশি। তাই কেনাকাটা কক্সবাজার থেকে করাই উত্তম। কিন্তু এখন কক্সবাজারও ভেজাল ও নকল পণ্য দিয়ে ভরপুর। তাই সবচেয়ে ভালো হয় সৈকত থেকে কেনাকাটা না করে বরং সৈকত থেকে একটু দূরে বার্মিজ মার্কেট থেকে কেনাকাটা সেরে ফেলা। তবে তার আগে অন্য দোকানগুলোতেও একবার ঢু মেরে নিবেন দাম সম্পর্কে ধারণা পাওয়ার জন্য।

লম্বা মেয়েদের যে ১২টি সমস্যার মাঝে ঘুরপাক খেয়েই সারা জীবন কাটাতে হয়

Quiz: ৬টি উত্তরে জেনে নিন সিসিমপুরের কোন চরিত্রটি আপনি