মাইরালামাইরালা ভাল্লাগসেভাল্লাগসে কস্কি মমিনকস্কি মমিন সেন্টি খাইলামসেন্টি খাইলাম

সম্পর্কের শুরুতেই যে ৭ ধরণের গান ক্রাশকে পাঠানো খুবই রিস্কি

ক্রাশের সাথে বিভিন্ন ম্যাসেজিং প্লাটফর্মে কথা বলার সময় সুযোগ পেলেই পছন্দের গানের লিংক পাঠিয়ে দেওয়া খুবই স্বাভাবিক। কিন্তু এই কাজ করার বেলায় একটা নির্দিষ্ট প্যাটার্ন ফলো না করে উরাধুরা গান পাঠানো শুরু করলে তা আপনাকে ক্রাশের মন থেকে আরো দূরে সরিয়ে দিবে। তাই আগে জেনে নিন ক্রাশের সাথে কথা বলার সময় কোনো লেভেল কোন ধরণের গান না পাঠানোই ভালো।

১. কথা বলা শুরুর কয়েকদিনের মধ্যেই এক নাগাড়ে শুধু রোমান্টিক গান পাঠানো বেশ রিস্কি। রোমান্টিক গান অবশ্যই পাঠাবেন কিন্তু গ্যাপ দিয়ে দিয়ে।

via GIPHY

 

২. যেসব গানের লিরিক্সে সরাসরি ভালোবাসা এক্সপ্রেস করার মতো কথাবার্তা আছে, সেগুলো পাঠানোর আগে আপনাদের সম্পর্ক এখন কোন পর্যায়ে আছে তা ১০বার ভেবে নেওয়া উচিত

via GIPHY

 

৩. আর বিয়ে-শাদী নিয়ে সামান্যতম হিন্ট আছে , এরকম গান তো পাঠানো মানে জেনে শুনে রিস্কের সমুদ্রে ঝাঁপ দেওয়া

via GIPHY

 

৪. ক্রাশের কোনো ব্রেক-আপ হিস্টোরি থাকলে তাকে ছ্যাঁকা খাওয়া টাইপের গান না পাঠানোই উত্তম। কারণ এসব গান তার শুনা হয়ে গেছে এবং সহজেই তার এক্সের কথা মনে করিয়ে দিতে পারে

via GIPHY

 

৫. বাংলা বা হিন্দি আইটেম সং আপনার এবং আপনার হোমিদের কাছে খুব ভালো লাগতেই পারে কিন্তু তার মানে এই না যে সেটি ক্রাশের সাথে শেয়ার করতে হবে

via GIPHY

 

৬. এমন কোনো গান যা আপনার ক্রাশের পার্সোনালিটি এবং রুচির সাথে যায় না, তা পাঠিয়ে এক্সপেরিমেন্ট না করাই ভাল। কে জানে কখন আবার হিতে বিপরীত হয়ে যায়!

via GIPHY

 

৭. এবং অবশ্যই ভিজ্যুয়ালি ডিস্টার্বিং বা এক্সপ্লিসিট মিউজিক ভিডিও ক্রাশকে পাঠানোর কোনো দরকার নেই।

via GIPHY

Lesser known benefits of people who get easily excited

Quiz: জেনে নিন এই পহেলা বৈশাখে পান্তা-ইলিশের বদলে কোন আইটেমটি আপনার খাওয়া উচিত