ভাল্লাগসেভাল্লাগসে

বাংলাদেশি মোটিভেশনাল স্পিকারদেরকে যে ৬টি কারণে পাত্তা দিবেন না

আপনার লাইফে মোটিভেশন কমে গেলে আপনি অনেক কিছুই করতে পারেন। ভালো মুভি দেখতে পারেন, বই পড়তে পারেন কিংবা জ্ঞানী মানুষদের সাথে কথা বলতে পারেন। কিন্তু আমরা এসব না করে মোটিভেশনাল স্পিকারের কথা বার্তার উপরেই বেশি ভরসা রাখি। ভিডিও দেখে, মোটিভেটেড হয়ে তারপর সব ভুলে যাই। কারণ তাদের ওইসব কথা বা কাজের কোনো ইফেক্ট নাই। তাই কেন তাদেরকে পাত্তা দিবেন না, তা আজকে ভালো করে জেনে নিন।

১. The Struggle Is Real – মোটিভেশনাল স্পিকাররা রসিয়ে রসিয়ে তাদের স্ট্রাগলের কথা বলবে। যা সত্য কিনা মিথ্যা যাচাই করাও সম্ভব না।

via GIPHY

 

২. Personal Achievements – বেশিরভাগ বাংলাদেশী মোটিভেশনাল স্পিকার ব্যক্তিগত অর্জন খুব বেশি নেই। বরং কয়েকটা অ্যাচিভমেন্ট এর উপর ভর করেই এখনো ব্যবসা টিকে আছে তাদের

via GIPHY

 

৩. Hypocrisy At It’s Best – যারা নিজের ফ্রেন্ড সার্কেলের বন্ধুদের হিপোক্রেসি দেখে মনে করে যে দুনিয়ায় সব হিপোক্রেসি দেখা হয়ে গেছে, তারা আসলে মোটিভেশনাল স্পিকারদের ৫ বছর আগের এবং বর্তমান ভিডিওগুলো দেখে কম্পেয়ার করে নাই

via GIPHY

 

৪. Singular Perspective – তারা যত কথাই বলুক, নিজের পার্সপেক্টিভ থেকে বলবে। আপনার বা যে কারো জায়গায় নিজেকে বসিয়ে দুনিয়াকে দেখার ক্ষমতা তাদের নাই

via GIPHY

 

৫. Self Motivation Is A Real Thing – Self Motivation ছাড়া অন্য কোনো মোটিভেশন খুব বেশি কাজে আসে না। তাই হাবিজাবি অনেক কিছু নিয়েই তারা কথা বলবে কিন্তু সেলফ মোটিভেশন নিয়ে কথা বলে না । কারণ তাহলে তো ব্যবসায় লাল বাত্তি ।

via GIPHY

 

৬. They DON’T MATTER – তারা কি করেছে না করেছে, তাদের লাইফ কেমন বা অ্যাচিভমেন্ট কি – এগুলো কিছুই ম্যাটার করে না। হ্যাঁ, কোনো ভালো ইনফরমেশন বা গাইডলাইন যদি পেয়ে থাকেন তাদের কাছ থেকে তাহলে সেটা নিবেন। কিন্তু তার লাইফ তার, আপনার লাইফ আপনার।

via GIPHY

যে ৯টি ঘটনা প্রমাণ করে মানুষ বাথরুমে গিয়েই সব ভুলে যায়

Quiz: কুইজ খেলে জেনে নিন বার্গারের কোন অংশটি আপনি